আন্তর্জাতিকএশিয়া

‘আসামের ১৪ লাখ বাসিন্দাকে বাংলাদেশে পাঠানো হবে’

আসামে চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা থেকে ১৯ লাখ বাসিন্দার নাম বাদ পড়েছে। এর মধ্যে ১৪ লাখ বাসিন্দা নাকি বেআইনিভাবে বাংলােদশ থেকে ভারতে এসেছে। এই অবৈধ শরণার্থীকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে দেওয়া হবে বলে হুমকি দিয়েছেন আসামের অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা।

বেআইনি শরণার্থীদের নিয়ে কোনো রকম আপোষের পথে হাঁটবে না বিজেপি সরকার। গতকাল থেকে এমন বার্তাই দিয়ে চলেছেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা। গতকালই তিনি দাবি করেছেন যে, সীমান্তবর্তী জেলার বাসিন্দাদের নথি আবার খতিয়ে দেখা উচিত। তারা ওই নথিতে কারচুপি করেছে এমন অভিযোগ করেছেন তিনি।

এখানেই থেমে থাকেননি এই নেতা। ১৪ লাখ বেআইনি শরণার্থীকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে দেওয়ার কথা বলছেন তিনি। হিমন্ত বলছেন, এ বিষয়ে তিনি বাংলাদেশের সঙ্গে কথা বলবেন। নাম বাদ যাওয়া বাসিন্দারা আবারও তাদের নথি জমা দিয়ে তালিকায় নাম তোলার জন্য ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে আবেদন জানাতে পারবেন। এদিকে, এনআরসি তালিকা থেকে ১৯ লাখ বাসিন্দার নাম বাদ পড়া নিয়ে তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এক টুইট বার্তায় তিনি এনআরসির সমালোচনা করে বলেছেন কোনওভাবেই এই অন্যায় মেনে নেওয়া যাবে না। পুরোটাই রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলেও দাবি করেছেন তিনি। তার পাল্টা জবাবে হিমন্ত অভিযোগ করেছেন মমতা এনআরসির বিরোধিতা করছেন কারণ এরা তার ভোট ব্যাংক। হিমন্তের এই বক্তব্যের পরেই আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে আসামে। তালিকা থেকে বাদ পড়া ১৯ লাখ বাসিন্দা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন। যদিও পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যাপ্ত রাখা হয়েছে। তবে কোনও রকম অশান্তির খবর এখনও পাওয়া যায়নি।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close