দেশবাংলা

৬০ টাকার ত্রাণ আনতে ৪০ টাকা খরচ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে ৬০ টাকার ত্রাণ আনতে গিয়ে ৪০ টাকার গাড়ী ভাড়া গেল ত্রাণ আনতে যাওয়া ভোক্তভোগীদের। এ যেন নুন আনতে পান্তা ফুরানোর গল্প। উপজেলার বুধন্তী ইউনিয়নে এলজি এসপির বরাদ্ধকৃত মালের বিতরণের সময় এ অভিযোগ করে ভোক্তভোগীরা।

রোববার বুধন্তী ইউনিয়ন পরিষদে এলজি এসপির বরাদ্বকৃত ৪৫০০০ টাকার মালামাল ১৫০ জনের মাঝে বিতরণের কথা থাকলেও বাস্তবে দেখা যায় ভিন্নরূপ। অল্প কিছু জীবানুনাশক ব্লিসিং পাওডার, একটি মাঝারী লাইফবয় সাবান ও কয়েকটি মাস্ক বিতরণ করতে দেখা যায়। সাংবাদিকের উপস্থিতি টের পেয়ে বিতরণ বন্ধ করে দেয় কতৃপক্ষরা।

”স্থানীয় একজন সাংবাদিক সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে মাস্ক পরা এক ব্যাক্তি তেরে আসে। তার পরিচয় জানতে চাইলে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে সে”। বুধন্তী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিতু মিয়ার কাছে বরাদ্দের তালিকা ও বক্তব্য চাইলে স্থানীয় সাংবাদিককে কোন সদোত্তর দেননি । উপস্থিত সুবিধাভোগীদের সাথে কথা বলে জানা যায় প্রায় তিন ঘন্টা অপেক্ষা ও ৫০/৭০ টাকা যানবাহনের ভাড়া মিটিয়ে প্রায় ৬০ টাকার মালামাল পায়।

কেউ কেউ যানবাহন না পেয়ে ১০০টাকা ভারায় রিকশা রিজার্ভ করে নিয়ে যায়। এ সময় ভোক্তভোগীর চরম হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে। ভোক্তভোগী আলী আকবর জানায়, আমি প্রতিবাদ করলে তারা আমার মারার জন্য তেরে আসে, আমি এর বিচার চাই। উপস্থিত সুশীল সমাজ এর বিচার ও প্রতিকার দাবী করেন। এ ব্যাপারে ৪/৫/৬ সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার নিলুফা ইয়াসমিন বলেন আজকে কোন মাল বিতরণ করা হবেনা।

এ ব্যাপারে ৯ নং ওয়ার্ড মেম্বার মো জামাল মিয়া বলেন এ ধরনের কার্যকলাপ দেখে আমি পরিষদ থেকে রাগ করে চলে এসেছি। একইভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করেন ৭ নং ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ গাউস মিয়া তিনি বলেন এই ধরণের অনিয়ম দেখে আমি পরিষদ থেকে চলে আসি এটা জনগনের সাথে এক ধরনের মস্করা করা হয়েছে।

৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোঃ জজ মিয়া বলেন এ ধরনের কার্যকলাপ করাটা সঠিক হয়নি। মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে বুধন্তী ইউনিয়ন পরিষদের সচিব জানান, আমি অসুস্থ তাই বাড়িতে আছি বরাদ্ধের ব্যাপারে জানতে চাইলে জানান, জনপ্রতি ৩০০ টাকা করে ১৫০ জনকে দেয়া হবে।

অনিয়মের ব্যাপারে বুধন্তী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিতু মিয়ার কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে এ প্রতিবেদককে বলেন আগামীকাল মাল দেব । এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এই অল্প টাকায়ও যদি তারা এরকম করে সত্যি দুঃখজনক, ঘটনার ব্যাপারে অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শামসুল ইসলাম, বিজয়নগর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close