দেশবাংলা

জীবিত ব্যাক্তি স্মার্ট কার্ড নিতে এসে দেখলেন তিনি মৃত!

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা নির্বাচনে অফিসে জাতীয় পরিচয়পত্রের স্মার্টকার্ড সংগ্রহ করতে এসে জীবিত মানুষকে মৃত জানালেন নির্বার্চন অফিসার। এমন সংবাদ মুখের সামনে শুনে নির্বাক বয়োবৃদ্ধ মুনছুর আলী। রবিবার দুপুরে আবেগে এ কথা জানালেন ভুক্তভোগী মুনছুর আলী।

তিনি বয়ষ্কোভাতার টাকা পাবেন। একারণে বিকাশ একাউন্ট করতে হবে জেনে স্মার্টকার্ড তুলতে এসেছিলেন। মুনছুর আলী গাংনী উপজেলার মটমুড়া ইউনিয়নের রাজাপুর কোদাইলকাটি গ্রামের মৃত মমীন বিশ্বাসের ছেলে। জাতীয় পরিচয়পত্র নং-৫৭১৪৭৬৩৪৫২৩১৭ জন্ম তারিখ- ১৪-০২/১৯৫০।

মটমুড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সোহেল আহম্মেদ জানান, জাতয়ী পরিচয় পত্রে তথ্য সংগ্রহের ক্ষেক্রে যারা নিয়োজিত ছিলেন তারা ব্যাক্তি পরিচয় না জেনে নিজের মনগড়া তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তি করেছে। এমন অনেক ভুল করে জীবিত ব্যাক্তিকে মৃত বলে তথ্য সরবরাহ করেছেন। মহম্মদপুরের আবেদ আলী নামের এক স্কুল শিক্ষক এর ক্ষেত্রে এমন জটিলতা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার আব্দুল আজিজ বলেন, আমি গাংনীতে দায়িত্ব নেবার পর থেকে বেশ কয়েকটি এমন জটিলতায় পড়েছি। তবে আবেদন করা হলে সমস্যার সমাধান করা হবে।

আকতারুজ্জামান, মেহেরপুর প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button