দেশবাংলা

কুড়িগ্রামে, ১৬টি নদ-নদীর বুকে জেগেছে অসংখ্য চর

প্রায় পানি শুণ্য হয়ে পড়েছে, কুড়িগ্রাম জেলার ওপর দিয়ে প্রবাহিত ব্রহ্মপুত্র, ধরলা,তিস্তা,দুধকুমারসহ, ১৬টি নদ-নদী। এসব নদীর বুকে জেগে উঠেছে, অসংখ্য চর। এতে, নদী কেন্দ্রীক জীবিকা নির্বাহকারী হাজার হাজার মানুষ হয়ে পড়েছেন কর্মহীন । শুধু জীবিকাই নয়, এর প্রভাব পড়েছে পরিবেশ ও জীব-বৈচিত্রে।

কুড়িগ্রাম সীমান্ত দিয়ে ব্রহ্মপুত্র,দুধকুমার এবং লালমনিরহাট সীমান্ত দিয়ে ধরলা ও তিস্তা বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে, এ জেলার ওপর দিয়ে দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়েছে। বছরের পর বছর ড্রেজিংয়ের অভাবে, এসব নদ-নদীর তলদেশ ভরাট হয়ে যাওয়ায়, বর্ষা মৌসুমে দু’কুল ছাপিয়ে ভয়াবহ বন্যার সৃষ্টি হয়। এখন শুকনো মৌসুমে, এসব নদ-নদী শুকিয়ে, কোথাও কোথাও সরু ক্যানেলে পরিনত হয়েছে।

পুরো নদীর বুক জুড়ে অসখ্য চর জেগে ওঠা এবং পানির স্রোতে থেমে যাওয়ায় বন্ধ রয়েছে নৌ-পথ। বেকার হয়ে পড়েছেন, নদীতে মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করা মৎস্যজীবিরাও।

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে, নদীর এ বৈরি আচরন বলে মনে করছেন, প্রকৃতি বিশেষজ্ঞরা। নদী শাসন ও ড্রেজিংয়ের মাধ্যমে, নদীর নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে কাজ চলছে। জানালেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা। দ্রুত নদীর নাব্যতা ফিরিয়ে এনে, প্রকৃতি ও জীব-বৈচিত্রের ভারসাম্য রক্ষার দাবী, বিশেষজ্ঞসহ নদী পাড়ের মানুষের।

ডেস্ক রিপোর্ট/ বাংলা টিভি।

 

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button