fbpx
অর্থনীতিদেশবাংলা

ভোলায় চাষ হচ্ছে বিলুপ্ত প্রজাতির দেশীয় মাছ

ভোলা থেকে প্রায় হারিয়ে গেছে, বিভিন্ন প্রজাতির দেশীও মাছ। ফলে এসব মাছ খাওয়া তো দূরের কথা, চোখে দেখা থেকেই বঞ্চিত হচ্ছে, নতুন প্রজন্ম। তবে মাছগুলোকে বিলুপ্তির হাত থেকে রক্ষা এবং নতুন প্রজন্মের কাছে পরিচয় করিয়ে দিতে, বিলুপ্ত প্রজাতির দেশীয় মাছ চাষ শুরু হচ্ছে ভোলায়। প্রাথমিক পর্যায়ে শতাধিক চাষী, দেশীয় প্রজাতির মাছ চাষে সফলতা পেয়েছেন। আর দেশীয় প্রজাতির মাছের চাহিদা,দাম বেশি ও কম খরচে বেশি লাভ হওয়ায়, নতুন নতুন অনেক চাষী, এ জাতের মাছের আবাদে আগ্রহী হচ্ছেন।

এমন সময় ভোলার শহর ও গ্রামের পুকুর-বিলে দেখা মিলতো শিং,টাকি, শোল, বাইন,কই,পাবদাসহ বিভিন্ন প্রজাতির দেশীয় মাছ। কিন্তু কালের পরিবর্তনের সাথে হারিয়ে যেতে বসেছে ওইসব দেশীয় মাছ। তবে এবছর পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) এর অর্থায়নে, গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থা নামে একটি বেসরকারি সংস্থা, ভোলা সদর উপজেলায় শতাধিক মাছ চাষীদের দিয়ে, পরীক্ষামূলকভাবে বিলুপ্ত প্রজাতির দেশীয় শিং,টাকি,শোল,বাইন কই সহ বিভিন্নরকম মাছ চাষে সফলতা পেয়েছেন চাষীরা।

বাজারে দেশীয় প্রজাতির চাষের চাহিদা ও দাম ভালো পাওয়ায়, আগামীতে বাণিজ্যিকভাবে দেশীয় প্রজাতির মাছ চাষের পরিকল্পনা নিচ্ছেন চাষীরা। এছাড়াও, নতুন নতুন অনেক চাষীরাও আগ্রহী হচ্ছেন দেশী মাছ চাষে।

তবে প্রকল্প কর্মকর্তা জানান, ভোলা সদর উপজেলার শতাধিক চাষীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে, পরীক্ষামূলকভাবে বিলুপ্ত প্রজাতির দেশীয় মাছ চাষ করা হয়েছে। বাজারে দেশী প্রজাতির মাছের চাহিদা ও দাম বেশি হওয়ায়, লাভবান হচ্ছেন চাষীরা।বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে ভোলাসহ সারাদেশে, দেশীয় মাছ চাষ করা হলে, বিলুপ্তির হাত থেকে রক্ষা পাবে এসব দেশীয়  মাছ।

ডেস্ক রিপোর্ট/ বাংলা টিভি/ এস

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button