fbpx
বাংলাদেশ

পাথরঘাটার উপকূলীয় এলাকায় র‌্যাবের তৎপরতা বাড়ায় আশার আলো দেখছেন স্থানীয়রা

বরগুনার পাথরঘাটার সমুদ্র উপকূলীয় এলাকায় জলদস্যুদের উপদ্রব দীর্ঘদিন কম থাকলেও, ইদানিং দু’একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনায় আবারো আতংক ছড়িয়ে পড়েছে জেলেদের মাঝে। সম্প্রতি র‌্যাবের অভিযানে এক জলদস্যু নিহত হলে নিরাপত্তার আলো দেখছেন তারা। জেলে ও স্থানীয়রা বলছেন, র‌্যাবের তৎপরতা বাড়লে অচিরেই দস্যূমুক্ত হবে পাথরঘাটার উপকূলীয় এলাকা।

বরগুনার পাথরঘাটার জেলেরা বলছেন জলদস্যুদের উপদ্রব বেড়েছে। জলদস্যুরা জেলের আটক করে মুক্তিপণ হিসেবে আদায় করছে মোটা অংকের টাকা। আর আদায়ে ব্যর্থ হলেই ঘটাচ্ছে হত্যাকান্ড।

বরগুনার পাথরঘাটার সমুদ্র উপকূলীয় এলাকায় আবারো সক্রিয় একাধিক জলদস্যু বাহিনী। জলদস্যুরা সাগরে অপহৃত জেলেদের পরিবার ও মালিকের কাছ থেকে মুক্তিপণের টাকা আদায় করছে। আর টাকা না পেলেই ঘটছে হত্যাকাণ্ড।

সম্প্রতি র‌্যাবের তৎপরতা বাড়ায় আশার আলো দেখছেন জেলে ও স্থানীয়রা। তারা বলছেন অচিরেই এলাকাটি জলদস্যু মুক্ত করতে র‌্যাবের স্থায়ী ক্যাম্প ও টহল দরকার।

স্থানীয় মৎস্যজীবী ও বরগুনা ফিসিং ট্রলার শ্রমীক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক দুলাল মাস্টার বলেন, জলদস্যুতা কমাতে অচিরেই এই বরগুনায় র‌্যাবের ক্যাম্প জরুরি। সেইসঙ্গে স্থলভূমি সাধারণ মানুষের সাথে মিশে থাকা দস্যুদের সহযোগিদেরও খুঁজে বের করতে হবে।

র‌্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন আজ বরগুনা পাথরঘাটায় এক মতবিনিময় সভায় জেলেদের আশ্বাস দিয়ে বলেন, যারা দস্যুতার সাথে জড়িত তাদের খুঁজে বের করা হবে।

শুধু জলদস্যুতা নয় র‌্যাবের তৎপরতাযর ফলে সবরকম অপরাধই কমে যাওয়ার প্রত্যাশা উপকূলবাসীদের।

বাংলাটিভি/ সাকিব

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button