আন্তর্জাতিকএশিয়াজনদুর্ভোগদুর্ঘটনাদেশবাংলা

২০০ কিলোমিটার বেগে উড়িষ্যায় আছড়ে পড়ল ফণী

শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ফণী ভারতের ওড়িশা রাজ্যের পুরি উপকূলে আঘাত হেনেছে। শুক্রবার (৩ মে) স্থানীয় সময় সকাল পৌনে ৯টার দিকে আঘাত হানে ঘূর্ণিঝড়টি। ঝড়ের পাশাপাশি সেখানে প্রচুর বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। বাতাসের গতিবেগ রয়েছে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২১০ কিলোমিটার। পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে রাজ্যের ১১ লাখ বাসিন্দাকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

আনন্দবাজার বলছে, গত তিন দিন উপগ্রহ চিত্রে গতিবিধির ওপর নজর রাখার পর আবহাওয়া অফিস জানিয়েছিল, শুক্রবার বেলা ৩টার সময় বঙ্গোপসাগর থেকে স্থলভূমিতে ঢুকবে সাইক্লোন ফণী। কিন্তু তার আগেই সকাল ৮.৫০ মিনিট নাগাদ উড়িষ্যায় ঢুকে পড়ল ফণী।

দিল্লির আবহাওয়া বিভাগের সাইক্লোন সতর্কতা কেন্দ্রের প্রধান মৃত্যুঞ্জয় মহাপাত্র জানান, শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে ১২টার মধ্যে কোনো এক সময়ে ফণী আছড়ে পড়বে পুরী সংলগ্ন গোপালপুরে। এর পর তটরেখা ধরে সেটি পশ্চিমবঙ্গে ঢুকে দক্ষিণবঙ্গের ওপর দিয়ে বাংলাদেশের দিকে চলে যেতে পারে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফণীর প্রভাবে সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলায় সাজো সাজো রব বিরাজ করছে উড়িষ্যা, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশে।

ওড়িশা থেকে ‘ফণী’ স্থলভাগের ওপর দিয়ে পশ্চিমবঙ্গের দিকে এগুবে। এনডিটিভি জানিয়েছে, ওড়িশা, অন্ধ্র প্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে আঘাত হানবে এই ঝড়।

বলা হচ্ছে, ১৯৯৯ সালের ঘূর্ণিঝড়ের পর এটাই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে শক্তিশালী। এই ঝড়ে প্রায় ১০ হাজার গ্রাম ও ৫০টি শহর ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত কলকাতা বিমানবন্দরে সব ফ্লাইট বন্ধ রাখা হয়েছে। ইতোমধ্যে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে প্রায় ১১ লাখ মানুষকে। 

বাংলাটিভি/প্রিন্স

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close