অন্যান্যবাংলাদেশ

রাষ্ট্রপতির ইদ নামাজ বঙ্গভবনে

অন্যান্য বছর জাতীয় ঈদগাহে ঈদের জামাতে অংশ নিলেও এবার করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেন বঙ্গভবনের দরবার হলে ঈদুল আজহার নামাজ পড়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। পরিবারের কয়েকজন সদস্য এবং অতি গুরুত্বপূর্ণ পদস্থ কর্মকর্তাদের নিয়ে ঈদের নামাজ পড়েন তিনি। করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে গত রোজার ঈদেও তিনি দরবার হলে নামাজ পড়েছেন।

বঙ্গভবনের পেশ ইমাম মাওলানা সাইফুল কবির নামাজে ইমামতি করেন বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন। সকাল ৮টায় এ জামাত অনুষ্টিত হয়।

প্রতি বছর ঈদুল আজহা আসে ত্যাগের আহ্বান নিয়ে, মুসলমানদের সবচেয়ে বড় এই ধর্মীয় উৎসব বাংলাদেশে পরিচিত কোরবানির ঈদ নামে। এবার ঈদ এসেছে এমন সময়ে যখন সারা বিশ্বের মানুষ করোনাভাইরাসের মহামারিতে বিপর্যস্ত। পাশাপাশি দেশের বিস্তীর্ণ এলাকায় চলছে বন্যা।

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে রোজার ঈদের মতো এবারও ঈদগাহ বা খোলা ময়দানে ঈদের জামাত করার অনুমতি দেওয়া হয়নি। ঈদের নামাজ মসজিদে মসজিদেই হয়েছে। দরবার হলে ঈদের নামাজ শেষে দেশে, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর কল্যাণে দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। যারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন তাদের আত্মার শান্তি কামনা এবং অসুস্থদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করে দোয়া করা হয়।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিদেহী আত্মার, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের ভয়াল রাতে অন্যান্য শহীদদের এবং যারা দেশের স্বার্থে বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলনে জীবন উৎসর্গ করেছেন বিশেষত একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে যারা শহীদ হয়েছেন তাঁদের আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে দোয়া করা হয়।

নামাজ শেষে রাষ্ট্রপতি হামিদ তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে বঙ্গভবনে সময় কাটান। তবে এবারে দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, বিদেশি কূটনীতিক বা অতিথিদের উপস্থিতিতে বিভিন্ন সুস্বাদু খাবার পরিবেশন বা আনুষ্ঠানিক শুভেচ্ছা বিনিময়ের কোনও আয়োজন ছিল না।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close