বলিউডবিনোদন

এবার এনসিবি’র মাদক তালিকায় দীপিকা

হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে দীপিকার ড্রাগের সাথে যোগাযোগের ইঙ্গিত পেয়েছে এনসিবি। চলতি সপ্তাহেই দীপিকাকেও তলব করা হবে বলে জানা গেছে। ওই চ্যাটে দীপিকা এক বিশেষ ড্রাগ চাইছেন। আর তা নিয়েই রয়েছে কথোপকথন।

রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ নিয়ে তদন্তে করতে গিয়ে গোয়েন্দারা দেখেন, সেখানে জয়া সাহা নামে এক নারীর সঙ্গে চ্যাট করেছিল রিয়া। তার সঙ্গে ড্রাগের বিষয়ে কথা বলতে দেখা গিয়েছিল রিয়াকে। সেই হোয়্যাটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে পরবর্তীতে বলিউডের ড্রাগ যোগের ইঙ্গিত পায় এনসিবি।

সেই জয়া সাহার সঙ্গে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে এমন দু’জনকে থাকতে দেখা গিয়েছে, যাদের নাম ছিল ‘D’ ও ‘K’. এর মধ্যে ‘D’ অর্থাৎ দীপিকা বলে চিহ্নিত করা হয়েছে আর ‘K’ অর্থাৎ কারিশ্মা। কারিশ্মা একটি ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট এজেন্সির কর্মী। তিনি দীপিকার ম্যানেজার বলেও জানা গেছে। মঙ্গলবারই তাকেও তলব করেছে ব্যুরো।

”২০১৭ সালের অক্টোবর মাস নাগাদ এই হোয়্যাটস অ্যাপ চ্যাটগুলি করা হয়। তাতে দীপিকা K এর থেকে মাল চাইলে জবাব আসে, আছে তবে বাড়িতে। এরপর K তাঁকে বলেন, অমিত-কে তিনি জিজ্ঞেস করতে পারেন যদি প্রয়োজন হয়। কারণ এই মুহূর্তে অমিতের কাছে তা আছে। তখন দীপিকা স্পষ্ট করে দেন তাঁর হ্যাশ চাই, পাতা চাই না।”

শুধু দীপিকাই নয়, আগেই সারা আলি খান ও শ্রদ্ধা কাপুরের নাম উঠে এসেছে ড্রাগ-কাণ্ডের তদন্তে। দেখা গেছে, পুনের কাছে একটি আইল্যান্ডে এরা পার্টি করতে গিয়েছিলেন সুশান্তের সঙ্গে। জেরায় রিয়া চক্রবর্তীও জানিয়েছেন যে সারা আলি খান, রকুল প্রীত সিং ও সিমোন খামবাট্টা ড্রাগ নিতেন। সূত্র- আনন্দ বাজার

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button