দেশবাংলা

বরিশালে ত্রিমুখী সংঘর্ষে আহত ৩৩

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ উলানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থক ও পুলিশের মধ্যে ত্রিমুখী সংঘর্ষে তিন পুলিশ সদস্যসহ ৩৩ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) রাতে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৪৬ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে এবং অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে। এছাড়া দুই পক্ষের ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে।

বরিশালের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাঈমুল হক জানান, শুক্রবার বিকালে আচরণবিধি লঙ্ঘন করার দায়ে স্বতন্ত্র ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রুমা সরদারকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ নিয়ে তার সমর্থকদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। অপরদিকে, এ বিষয়টি নিয়ে নৌকার প্রার্থী কাজী আব্দুল হালিম মিলন চৌধুরীর সমর্থকরা উল্লাস প্রকাশ করেন। বিষয়টি ভালোভাবে নিতে পারেননি স্বতন্ত্র প্রার্থী রুমা সরদারের সমর্থকরা।

এ ঘটনায় দুই পক্ষ রাত ১০টার পর দক্ষিণ উলানিয়ার লালগঞ্জ বাজার এলাকায় মুখোমুখি অবস্থান নেন এবং ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে জড়ান। একপর্যায়ে তারা পাল্টাপাল্টি ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উভয়পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা চালায়।

এ সময় তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৪৬ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করে। তখন বিবাদমান দুই পক্ষ পুলিশের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। ত্রিপক্ষীয় এই সংঘর্ষে দুই প্রার্থীর কমপক্ষে ৩০ জন সমর্থক আহত হন। পাশাপাশি ইটের আঘাতে ৩ পুলিশ সদস্য আহত হন।

আহত পুলিশ সদস্যদের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বাকি আহতদের মধ্যে ১০ জনকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button