বাংলাদেশ

৫১ ভাগ তরুণ বর্তমান সরকারকে ক্ষমতায় দেখতে চায় : গবেষণা প্রতিষ্ঠান কলরেডি

জাতীয় নির্বাচনে নতুন ভোটার ১০ শতাংশ, যাদের ৫৩.৫ শতাংশ মনে করে আসন্ন নির্বাচন সুষ্ঠু হবে। উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কারণে বর্তমান আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারকে ফের ক্ষমতায় দেখতে চায় ৫১.০৩ ভাগ তরুণ।

বিপরীতে ৩০ ভাগের কিছু তরুণ এ সরকারের পরিবর্তন চায় এবং ১৮ দশমিক ৫ শতাংশ শিক্ষার্থী এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেননি।

শিক্ষার্থীদের বড় অংশ আপত্তি জানিয়েছেন, মোবাইল ফোনের কলরেট বৃদ্ধি নিয়ে।  অন্যদিকে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা নিয়ে অধিকাংশ শিক্ষার্থীর জোরালো মত আছে।

গবেষণা ও কমিউনিকেশন স্ট্র্যাটেজি ডেভেলপমেন্ট বিষয়ক প্রতিষ্ঠান কলরেডির সাম্প্রতিক জরিপে উঠে এসেছে এসব তথ্য।

১০ নভেম্বর শনিবার রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে‌ সংবাদ সম্মেলনে এসময়-

কলরেডির চিফ অপারেটিং অফিসার আজাদ আবুল কালামসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জরিপ ফলাফল উপস্থাপন করেন অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী, বিশিষ্ট গবেষক ড. আবুল হাসনাৎ মিল্টন।

তিনি জানান, গত ২২ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত দেশের ১২টি জেলার ২১টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১১৮৬ শিক্ষার্থীর ওপর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে নতুন ভোটারদের ভাবনা’ শীর্ষক জরিপটি পরিচালনা করা হয়।

তিনি আরো বলেন, জরিপে দেখা গেছে প্রায় ৮০ শতাংশ শিক্ষার্থী রাজনীতি থেকে দূরে।

এটা দেশের রাজনীতির জন্য অশনি সংকেত। কেননা আজকের তরুণরা রাজনীতিতে না হলে ভবিষ্যতে নেতা আসবে কোথা থেকে?

জরিপে অংশগ্রহণকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১০টি ঢাকার।  এর মধ্যে আছে- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েট, ঢাকা মেডিকেল কলেজ

হাসপাতাল, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়সহ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত কিছু কলেজ এবং কিছু প্রথম সারির বেসরকারি

বিশ্ববিদ্যালয়।  ১১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঢাকার বাইরের, যার মধ্যে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ও আছে,

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত কিছু কলেজও আছে।

তবে এর মধ্যে রাজশাহী বিভাগে বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচন চাওয়া আর না চাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় সমান।

বাকিগুলোতে অধিকাংশই বর্তামান সরকারের অধীনে নির্বাচন চায়।

বাংলাটিবি/এসএম/এবি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button