অন্যান্য

এক মাসের মধ্যে ওজন কমাতে চান!

কিছু কিছু ব্যায়াম আছে, যা বহু বছর ধরে সমান জনপ্রিয়। কোনও জিমে না গিয়ে, ট্রেনারের দ্বারস্থ না হয়েও সেগুলি নিশ্চিন্তে অভ্যেস করতে পারেন এবং হাতে-নাতে ফলও মিলবে।

দৌড় বা স্প্রিন্ট: হাঁটার রুটিনে কিছুদিনের মধ্যে অভ্যস্ত হয়ে পড়বে আপনার শরীর, তখন শুরু করুন স্প্রিন্ট বা শর্ট ডিসট্যান্স দৌড়। 100 মিটার খুব দ্রুত ছোটার চেষ্টা করুন। তার পর ব্রেক নিন কয়েক সেকেন্ড, আবার ফিরে আসুন স্টার্টিং পয়েন্টে। আবার বলছি, খুব ভালো রানিং শ্যু পরে তবেই দৌড়বেন। প্রথমদিকে 15 মিনিট বা আধ ঘণ্টা বরাদ্দ রাখুন দৌড়ের জন্য। তার পর প্রতি সপ্তাহে পাঁচ-সাত মিনিট করে সময় বাড়াতে হবে। শীতের ভোরে বা বিকেলে এই ব্যায়াম আপনাকে মুহূর্তে চাঙ্গা করে তুলবে। যাঁরা কখনও দৌড়োননি, তাঁদের পায়ে ব্যথা হওয়াই স্বাভাবিক প্রথম দিকে – তবে অভ্যেস চালিয়ে গেলে ধীরে ধীরে পা আর আপার বডি শক্তিশালী হয়ে উঠবে।

ক্রাঞ্চেস: ক্রাঞ্চেস আপনার কোর মাসলকে দারুণ শক্তিশালী করে তোলে, ফলে কোমর আর পেট হয়ে ওঠে নির্মেদ। মাটিতে টানটান হয়ে শুয়ে পড়ে পা ভাঁজ করে ক্রাঞ্চেস করা যায়, পুরো পা ছড়িয়ে করতে পারেন। বিছানা বা কোনও চেয়ারের উপর পা তুেল দিয়েও ক্রাঞ্চেস অভ্যেস করা যায়।

হাঁটা: স্বাভাবিকভাবে আপনি যতটা জোরে হাঁটেন, তার চেয়ে একটু বেশি দ্রুত পা চালালেই সেটা ব্যায়ামের পর্যায়ে পৌঁছবে। ধীরে ধীরে গতিবেগ বাড়ান, হালকা জগিং করতে পারলে খুব ভালো হয়। একেবারে শুরুতে আধ ঘণ্টা হাঁটুন, তার পর ধীরে ধীরে সময়টা বাড়াতে হবে। ঘণ্টাখানেক সমান গতিতে হাঁটতে পারলে ওজন তো কমবেই, জোর বাড়বে ফুসফুসেরও।

স্কোয়াটস: স্কোয়াটস হচ্ছে ওঠ-বোস। পা সামান্য ফাঁক করে সোজা দাঁড়ান। শরীরটা সোজা রেখেই যতটা নিচে নামতে পারেন ততটা নেমে বসুন। আবার উঠে দাঁড়ান। পিঠ যেন বেঁকে না যায়। গ্লুটস আর পেটের মাসল ভিতরদিকে টেনে রাখবেন। একসঙ্গে অন্তত 20 টি স্কোয়াটস করার চেষ্টা করুন।

পুশ আপ আর ডিপস: দু’টি ব্যায়ামের ক্ষেত্রেই উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন মাটিতে। ডিপসের ক্ষেত্রে কাঁধ বরাবর হাত রাখুন, পা দুটো একটু ফাঁক করে রাখতে হবে। তার পর হাতের তালু আর পায়ের আঙুলে ভর দিয়ে শরীরটাকে ওঠানামা করান। পুশ আপের ক্ষেত্রে কাঁধের পাশে হাত থাকবে, পা থাকবে জোড়া। একইভাবে শরীরটাকে মাটির দিকে নামিয়ে আনুন, আবার উপরে তুলুন। পুরো পদ্ধতির সময় গ্লুটসটা ভিতর দিকে টেনে রাখতে হবে। কাঁধ, ছাতি, পেট আর ট্রাইসেপস একইসঙ্গে শক্তিশালী হয়ে উঠবে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close