অন্যান্যবাংলাদেশ

ভাষার মর্যাদা রক্ষার গৌরবদীপ্ত ইতিহাস রচনার দিন আজ

একুশে ফেব্রুয়ারি, বুকের তাজা রক্তে মায়ের ভাষার মর্যাদা রক্ষার গৌরবদীপ্ত ইতিহাস রচনার মহান দিন। ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে ফেব্রুয়ারি ছিল ঔপনিবেশিক প্রভুত্ব ও শাসন-শোষণের বিরুদ্ধে বাঙালির প্রথম প্রতিরোধ এবং জাতীয় চেতনার প্রথম উন্মেষ। যার পথ ধরে শুরু হয় বাঙালির স্বাধিকার আন্দোলন। এরই ধারাবাহিকতায়, একাত্তরে নয় মাসের সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে অর্জিত হয় স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ।

১৯৪৭ সালে দেশ ভাগের পর প্রথম আঘাতটাই আসে বাংলা ভাষার ওপর। ১৯৪৮ সালে পাকিস্তান সরকার ঘোষণা দেয়, উর্দই হবে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা। প্রতিবাদে গর্জে ওঠে পূর্ব পাকিস্তানের ছাত্র-জনতা। শুরু হয়, রাষ্ট্র ভাষা বাংলার দাবিতে আন্দোলন, সংগ্রাম।

১৯৫২ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি তীব্র গণজোয়ার সৃষ্টিকারী সেই আন্দোলন প্রতিহত করতে ১৪৪ ধারা জারি  করে শাসকগোষ্ঠী। একই সঙ্গে,  প্রাদেশিক রাজধানী ঢাকায় নিষিদ্ধ করা হয় সকল প্রকার সভা-সমাবেশ, শুরু হয় গণগ্রেফতার।

২১ ফেব্রুয়ারি ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমবেত হয় ছাত্র-জনতা; রাষ্ট্র ভাষা বাংলার স্লোগানে এগিয়ে যায় পূর্ব বাংলা আইন পরিষদের দিকে। মিছিলটি ঢাকা মেডিকেল কলেজের কাছাকাছি পৌঁছুলে অতর্কিত গুলিবর্ষণ শুরু করে পুলিশ।

সেদিন বীর বাঙালির রক্তে রঞ্জিত হয়ে যায় রাজপথ; শহীদ হন সালাম, বরকত, রফিক, জব্বার, শফিউরসহ আরও অনেকে। শোকাবহ এ ঘটনার অভিঘাতে তীব্র ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে গোটা পূর্ব পাকিস্তানে।

ক্রমবর্ধমান গণআন্দোলনের মুখে, শেষ পর্যন্ত নতি স্বীকারে বাধ্য হয় পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় সরকার। ১৯৫৬ সালে সংবিধান পরিবর্তনের মাধ্যমে বাংলা ভাষাকে পাকিস্তানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষার স্বীকৃতি দেয়া হয়। বায়ান্নর ফেব্রুয়ারিতে সেই দুর্বার আন্দোলনে শহীদদের রক্তের বিনিময়ে বাঙালি জাতি পায় মাতৃভাষার মর্যাদা এবং আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রেরণা। এরই পথ ধরে শুরু হয় বাঙালির স্বাধিকার আন্দোলন। অর্জিত হয় স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ।

ফেব্রুয়ারি শোকাবহ মাস হলেও, বাঙালির জন্য গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায়ও এটি। জাতি হিসেবে একমাত্র বাঙালিই ভাষার জন্য জীবন দিয়ে বিশ্বজুড়ে সৃষ্টি করে অনন্য ইতিহাস। এ অসামান্য আত্মত্যাগের জন্য ১৯৯৯ সালে, ২১শে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয় জাতিসংঘ।

কৃতজ্ঞ বাঙালি জাতি চিরদিনই শ্রদ্ধা আর ভালোবাসার অর্ঘ্য ঢেলে দেবে তাদের জন্য- যাদের প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত- আ-মরি বাংলা ভাষা।

আসাদ রিয়েল, বাংলা টিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close