অন্যান্যবাংলাদেশ

করোনা আতঙ্কে বিশ্বজুড়ে পর্যটন খাতে ধস

চীনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ আতঙ্কে বিশ্বজুড়ে পর্যটন খাতে ধস নেমেছে। এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে বাংলাদেশেও।  আকাশপথে ঢাকা থেকে চীনে যাত্রী ব্যাপক কমে যাওয়ায় ফ্লাইট অর্ধেকে নামিয়ে এনেছে বিমান সংস্থাগুলো।

শুধু চীন নয়, ভাইরাস আতঙ্কে এশিয়ার প্রধান পর্যটন গন্তব্যগুলোতে টিকিট বাতিল করেছেন বাংলাদেশি ভ্রমণকারীরা। একইভাবে বাংলাদেশে আসার পূর্বনির্ধারিত ভ্রমণও বাতিল করছেন অনেক বিদেশি পর্যটক।

গেল বছরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে সংক্রমণ শুরু হওয়া করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ২৪৬১ জনে। আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছে গেছে ৮০ হাজারের কাছাকাছি। চীনের বাইরে দক্ষিণ কোরিয়া ও ইতালিতেও দ্রুত বাড়ছে এ ভাইরাসের সংক্রমণ।

এর প্রভাবে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে  বৈশ্বিক এয়ারলাইনস ও পর্যটন প্রতিষ্ঠানগুলো। যার ব্যতিক্রম নয় বাংলাদেশও। চীনের গুয়াংজুতে চলাচলকারী বাংলাদেশের একমাত্র বিমান সংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের জনসংযোগ বিভাগের মহাব্যবস্থাপক কামরুল ইসলাম জানান, গত ১৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ঢাকা-গুয়াংজু ফ্লাইটের সংখ্যা কমিয়েছেন তারা। আগে সপ্তাহে সাতটি ফ্লাইট চললেও এখন চলছে মাত্র তিনটি।

অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশ -আটাবের সভাপতি মনছুর আহমদ কালাম জানান, করোনাভাইরাস আতঙ্কে বাংলাদেশিরা বহির্বিশ্বের বিভিন্ন গন্তব্যে পূর্বনির্ধারিত টিকিট বাতিল করছে।

পর্যটক আকর্ষণের জন্য বিদেশে বাংলাদেশের দূতাবাসগুলোর মাধ্যমে নিয়মিত ব্রিফ করার পরামর্শ দিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। তাঁরা বলছেন, বাংলাদেশ যে এখনো করোনাভাইরাসমুক্ত, তা বহির্বিশ্বে ভালোভাবে তুলে ধরা প্রয়োজন।

আসাদ রিয়েল, বাংলাটিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close