দেশবাংলা

সরকারি নিষেধাজ্ঞায় ২ মাসের জন্য মাছ শিকার বন্ধ

আভয়াশ্রম হওয়ায়, ভোলার মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে আগামী ২ মাসের জন্য ইলিশসহ সব ধরনের মাছ শিকার বন্ধ হয়েছে শনিবার মধ্যরাত থেকে। সরকারের নিষেধাজ্ঞাকে স্বাগত জানিয়ে জেলেরা নৌকা, জালসহ মাছ ধরার সকল সরঞ্জাম নদী থেকে সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

তবে, তারা নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন সরকারী বরাদ্দকৃত চাল দ্রুত বিরতণ এবং ব্যাংক ও এনজিওর ঋনের টাকা আদায় বন্ধের দাবি জানিয়েছেন।

পয়লা মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত ভোলার মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে ইলিশসহ সব ধরনের মাছ শিকার, বাজারজাত, সংরক্ষণ ও বিক্রির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার। আর এ বিষয়ে ইতোমধ্যে জেলেদের সচেতনতামূলক কাজ শেষ করেছে মৎস্য বিভাগ। নদী থেকে নৌকা ও জালসহ, মাছ শিকারের সকল প্রকার সরঞ্জাম উঠিয়ে নিয়েছেন, জেলেরা।

মাছ ধরা নিষেধাজ্ঞার সময় জেলেদের জন্য সরকারের বরাদ্দকৃত চাল বিতরণ এবং বিভিন্ন ব্যাংক ও এনজিওর ঋনের টাকা আদায় বন্ধ করতে পারলে, এ কার্যক্রম সঠিকভাবে পালন করতে পারবেন বলে জানায় জেলেরা।

তবে, ভোলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আসাদুজ্জামান জানান, জেলেদের দাবীর প্রেক্ষিতে আগামী ৭ দিনের মধ্যে তাদের নামে বরাদ্দকৃত চাল বিতরণ শুরু করা হবে।

ভোলার সাত উপজেলায়, প্রায় সাড়ে ৩ লাখ জেলে থাকলেও, ভোলা মৎস্য বিভাগের নিবন্ধনকৃত জেলের সংখ্যা রয়েছে, ১ লাখ ৩২ হাজার ২৬০ জন। আর এবছর দুই মাসের নিষেধাজ্ঞার সময় চাল বরাদ্দ হয়েছে, ৭০ হাজার ৯৪৩ জন জেলের।

জুয়েল সাহা, ভোলা

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close