দেশবাংলা

আখ থেকে গুড় তৈরিতে পিছিয়ে নেই কুমিল্লা

আখ চাষ ও আখের রসের গুড়ের জন্য দেশের পশ্চিম জনপদ উল্লেখযোগ্য হলেও, পিছিয়ে নেই কুমিল্লা। আখ চাষে এ জেলার মাটি ও আবহাওয়া বেশ উপযোগী। একসময় কুমিল্লার বিভিন্ন উপজেলায় ব্যাপক আখ চাষ হলেও, সময়ের বিবর্তনে কিছু কিছু এলাকায় তা কমে গেছে। আর গুড় তৈরী করে মুনাফা পেয়েও সন্তুষ্ট কৃষকরা। কৃষি বিভাগ বলছে, চাষিদের সব ধরনের সহযোগীতা দেয়া হচ্ছে।

কুমিল্লা জেলায় চলতিবছর ৩শ ৬০ হেক্টর জমিতে রঙ বিলাস, লতা বিলাস, পঞ্চান্ন ও ঈশ্বরদী ২০৮ প্রজাতির আখ চাষ করা হয়েছে। পৌষ-মাঘ মাসে আখ থেকে ভালো রস পাওয়া যায়। এ সময় গুড় উৎপাদন হয় ভালো। পৌষের শুরুতেই কুমিল্লার কয়েক উপজেলায় চলছে আখের গুড় তৈরির হিড়িক।

দেশের উত্তর ও পশ্চিম জনপদের অনেক শ্রমিকই এখন কুমিল্লায় আখ মাড়াই ও গুড় তৈরির কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। শক্ত গুড় ৮০ টাকা এবং ঝোলা গুড় ১শ’ টাকা কেজি দরে বিক্রি করা হয়। আখ চাষের আগের ধারাবাহিকতা ধরে রেখেছে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা, সদর দক্ষিণ উপজেলা, চৌদ্দগ্রাম, বরুড়া, মনোহরগঞ্জ ও চান্দিনা উপজেলার চাষিরা।

কুমিল্লায় দিনদিন আখ চাষ বাড়ছে জানিয়ে জেলা কৃষি বিভাগ বলছে, চাষিদের সব ধরণের সহযোগিতা করা হচ্ছে। অন্যদিকে, কুমিল্লা অঞ্চলের আখের গুড় উন্নতমানের। কৃষি বিভাগের সার্বিক সহায়তায় আগামীতে জেলায় এর আবাদ আরও বাড়বে বলে মনে করছেন এখানকার কৃষকরা।

আরিফুর রহমান, কুমিল্লা প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close