বিশ্ববাংলা

কাতারে করোনায় প্রথম মৃত ব্যক্তি বাংলাদেশি

উপসাগরীয় দেশ কাতারে করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত ব্যক্তি, বাংলাদেশি দিলিপ কুমার দেব। এই প্রবাসী গত ১৬ মার্চ হাসপাতালে ভর্তি হলে ২৮ মার্চ শনিবার মৃত্যুবরন করেন তিনি।এদিকে কাতার জুড়ে বন্ধ রয়েছে প্রায় সবকিছু।

বিশ্বজুড়ে মরণব্যাধি করোনা ভাইরাস, এবার প্রাণ নিলো কাতারে বসবাসরত এক বাংলাদেশির। ৫৭ বছর বয়সী এই ব্যক্তির নাম দিলিপ কুমার দেব, তার গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল উপজেলায়। তিনি দীর্ঘদিন কাতারে সবজি ব্যবসার সাথে যুক্ত ছিলেন। তার মৃত্যুতে কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে আসে।

কাতার স্বাস্থ্য বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, গত ১৬ই মার্চ হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারপর তার শরীরের করোনাভাইরাস পজিটিভ ধরা পড়ে। এদিকে কাতারে জীবন যাত্রা প্রায় অচল হয়ে পড়েছে। রাস্তাঘাট ফাঁকা,কর্মহীন হয়ে পড়েছেন, প্রবাসী বাংলাদেশিসহ অভিবাসীরা। বিশেষ করে রুম ভাড়া আর বাজার খরচ নিয়ে সমস্যায় আছেন কম আয়ের শ্রমিকরা।

লকডাউনে থাকা শিল্পনগরী সানাইয়াতে কাতার শ্রম মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে, খাদ্য সামগ্রী দেয়া হলেও, কঠিন বাস্তবতার সাথে আছে কাতারের অন্য অঞ্চলের কর্মহীন প্রবাসী শ্রমিকরা। দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, শনিবার নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ২৮ জন সহ  মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৯০ জনে।

এই করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে সকলকে সরকারি পরামর্শ মেনে চলার পরামর্শ দিচ্ছেন, কাতার প্রবাসী বিশিষ্টজনেরা। এই বিষয়ে কাতার কুইক সল্যুশনস এর চেয়ারম্যান এবিএম দিদারুল আলম আরজু, সচেতনতার পাশাপাশি, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে, সরকারের সহযোগিতা চেয়েছেন।

বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল কাতার এর চেয়ারম্যান এম সাইফুল আলম বলেন, বর্তমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে কাতার সরকারের সাথে আমরা প্রবাসী কমিউনিটিও কাজ করছি,তিনি সকলকে সরকারি পরামর্শ মেনে চলার আহবান জানান।

এদিকে, করোনা পরিস্থিতির কারনে মহান স্বাধীনতা দিবসে বাংলাদেশ দুতাবাসে বড় কোন কর্মসূচী না থাকলেও, ভিডিও লাইভে বিদায়ী রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ বলেন, করোনাভাইরাস একটা বৈশ্বিক মহামারী, এই পরিস্থিতি মোকাবেলা করে দূতাবাস কাজ করে যাচ্ছে, লগডাউনে থাকা যেকোনো প্রবাসী হট লাইনে আমাদের জানাতে পারবেন তাদের যেকোনো সমস্যা।

হোসেন বাচ্চু, কাতার প্রতিনিধি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button