দেশবাংলা

জামালপুরে নকল ব্যান্ডরোল বিড়ি

জামালপুরের বেশীর ভাগ হাট বাজারে নকল ব্যান্ডরোল ও ব্যান্ডরোলবিহীন বিড়িতে ছেয়ে গেছে। এসব কোম্পানী ক্রেতাদের অধিকার ক্ষুন্ন করে এবং বিড়ি নীতিমালার তোয়াক্কা না করে, বাজারে নকল ও ভূয়া ব্যান্ডরোল ব্যবহার করে, প্রশাসনের চোখ ফাকি দিয়ে ব্যবসা করছে।

এতে বছরে ৫০ কোটি টাকার রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। তবে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে প্রশাসন।

জামালপুরে মূলত ৩টি কোম্পানীর বৈধতা থাকলেও, প্রায় ৪৬টি বিড়ি কোম্পানী নামে-বেনামে ব্যবসা পরিচালনা করে গ্রামগঞ্জ, হাট-বাজারে ব্যান্ডরোলবিহীন বিড়ি বিক্রি করে যাচ্ছে।

সরকার প্রতিটি ব্যান্ডরোল বিড়ির ট্যাক্স ৭ টাকা ৮৩ পয়সা নির্ধারিত করে ন্যুনতম ১৪ টাকায় বিড়ি প্যাকেট বিক্রির জন্য নির্ধারিত করলেও, এসব ভূয়া কোম্পানী নকল ব্যান্ডরোলের বিড়ির প্যাকেট বিক্রি করছে মাত্র ৭ থেকে ৮ টাকায়।

আর এতে জামালপুর থেকে প্রতিমাসে ৪ কোটি ও বছরে ৫০ কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার। এছাড়া ধুনপানে আগ্রহী করতে নানা ধরনের প্রনোদনা দিয়ে আসছে কোম্পানীগুলো, যা আইন বিরোধী। ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে শাস্তির দাবী জানিয়েছেন, সাধারণ মানুষ।

সূষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানালেন, বিভাগীয় কাষ্টমস কর্মকর্তা আব্দুল কুদ্দুস।

এদিকে, সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে নকল ব্যান্ডরোল ব্যবহারকারী কোম্পানী ও ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক।

সব মিলিয়ে নাম সর্বস্ব এসব কোম্পানীর বিড়ি স্বাস্থ্যের জন্য চরম ঝুঁকির পাশাপাশি সরকার হারাচ্ছে, কোটি কোটি টাকার রাজস্ব। এ ব্যাপারে সরকারের কঠোর পদক্ষেপ চেয়েছে জেলাবাসি।

কাওছার আহমেদ, বাংলা টিভি, জামালপুর

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close