আওয়ামী লীগবিএনপিরাজনীতি

বরগুনা-১ আসনে দুই দলের ৬৯ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী

||বেলাল হোসেন মিলন,বরগুনা||

বরগুনা সদর, আমতলী এবং তালতলী উপজেলা নিয়ে গঠিত ১০৯ বরগুনা-১ আসন। ২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগ পর্যন্ত বরগুনা সদর এবং বেতাগী নিয়ে গঠিত ছিল বরগুনা-০১ আসন। এ আসনটি আওয়ামীলীগ ঘাটি হিসাবে পরিচিত। বরগুনা-১ আসনে আ.লীগ দলীয় বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আ’লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর, বিরুদ্ধে স্থানীয় শীর্ষ নেতাদের বড় একটা অংশ অনিয়োম, দুর্নীতি আর ক্ষমতার অপব্যবহার এর অভিযোগ এনে তাকে এলাকায় অবাঞ্চিত ঘোষনা করেছেন। ফলে একাধিক গ্রুপে বিভক্ত হয়ে বরগুনা-১ আসনে মনোনয়ন কেনার প্রতিযোগীতা করছেন আ.লীগ নেতারা।

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ঘাটি হিসেবে পরিচিত বরগুনা-০১ আসন আবারো রেকর্ড গড়েছে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র ক্রয়-এ। দেশের তি’শ টি সংসদীয় আসনের মধ্যে বরগুনা-১ আসনে এ আওয়ামী লীগের সর্বোচ্চ সংখ্যক ৫২ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন আর বিএনপি থেকে বুধবার পর্যন্ত ৭ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন ।

বরগুনা সদর থেকে যারা আ’লীগের মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছে
বরগুনা সদর উপজেলা থেকে যারা মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন, তাদের মধ্যে রয়েছেন, বরগুনা-১ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আ’লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর কবীর, এই আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও বর্তমান বরগুনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ দেলোয়ার হোসেন, জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি হুমায়ূন কবীর ও গোলাম মোস্তফা, বরগুনা সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্বাস হোসেন মন্টু, জেলা যুবলীগের সভাপতি ও জেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান মহারাজ, জেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোতালেব মৃধা, আ’লীগের কেন্দ্রীয় উপ কমিটির কৃষি বিষয়ক সহ সম্পাদক মশিউর রহমান শিহাব।

জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম সরোয়ার টুকু, রইসুল আলম রীপন, বরগুনা-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম মোঃ সিদ্দিকুর রহমানের জেষ্ঠ কন্যা সোহেলী পারভিন মনি। আ’লীগের কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সাবেক সহ সম্পাদক ও সাবেক ছাত্র নেতা খলিলুর রহমান, বরগুনা সদর উপজেলা আ’লীগ সভাপতি ও বরগুনা সদর উপজেলা বুড়িরচর ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক শাহ মোহাম্মাদ ওলি উল্লাহ ওলি এবং জেলা আ.লীগ সদস্য মনিরুজ্জামান নসা, বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইমরান হোসেন রাসেল ফরায়েজী প্রমুখ।

আমতলী উপজেলা থেকে যারা আ’লীগের মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছে
বরগুনা-১ আসনের অর্ন্তভূক্ত আমতলী উপজেলা থেকে যারা মনোনয়নপ্রত্র ক্রয় করেছে, তাদের মধ্যে রয়েছেন- আ’লীগ নেতা ও ২০০১ সালের বরগুনা-৩ আসনের উপ নির্বাচনে আ’লীগ মনোনিত প্রার্থী গোলাম সরওয়ার ফোরকান, আমতলী পৌরসভার মেয়র মোঃ মতিয়ার রহমান, আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিএম দেলোয়ার হোসেন, বরগুনা-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নিজাম তালুকদারে স্ত্রী জাকিয়া এলিচ প্রমুখ।

তালতলী উপজেলা থেকে যারা আ’লীগের মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছে
বরগুনা-১ আসনের অর্ন্তভূক্ত তালতলী উপজেলা থেকে যারা মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন, তাদের মধ্যে রয়েছেন- উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোঃ মনিরুজ্জামান মিন্টু, তালতলী উপজেলা আ’লীগ নেতা ফজলুল হক জোমাদ্দার প্রমুখ।

এছাড়াও বরগুনা-১ আসনে আ’লীগের মনোনয়নক্রয়কারীদের মধ্যে রয়েছেন- ঢাকায় বসবাসরত সাবেক ছাত্রলীগ ও যুব নেতাদের মধ্যে মিজানুর রহমান মিজান, আবদুস সোবাহান খান, আবদুস সোবাহান লিটন, মামুদুর রহমান নিরু প্রমুখ।

বরগুনা সদর থেকে যারা বিএনপি’র মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছে
বরগুনা সদর উপজেলা থেকে যারা মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন, তাদের মধ্যে রয়েছেন, জেলা বিএনপি’র সভাপতি নজরুল ইসলাম মোল্লা, সাবেক জেলা বিএনপি’র সভাপতি মাহবুব আলম ফারুখ মোল্লা, সহশ্রম বিষয়ক সম্পাদক কেন্দ্রীয় কমিটি ফিরোজ্জামান মামুন মোল্লা প্রমুখ।

আমতলী উপজেলা থেকে যারা বিএনপি’র মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছে
বরগুনা-১ আসনের অর্ন্তভূক্ত আমতলী উপজেলা থেকে যারা মনোনয়নপ্রত্র ক্রং করেছে, তাদের মধ্যে রয়েছেন- বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাবেক সংসদ সদস্য, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মতিয়ার রহমান তালুকদার, সাবেক সংসদ সদস্য (১৫ ফেব্রæয়ারী) এ্যডভোকেট মজিদ মল্লিক, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারন সম্পাদক এ্যডভোকেট তহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

তালতলী উপজেলা থেকে যারা বিএনপি’র মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছে
বরগুনা-১ আসনের অর্ন্তভূক্ত তালতলী উপজেলা থেকে যারা মনোনয়নপ্রত্র ক্রয় করেছেন, তারেক রহমান স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ছাত্রসংগ্রাম পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি, সাবেক মহসচিব খন্দকার দেলোয়ার হোসেনের সহকারী একান্ত সচিব, ও জেলা বিএনপির সদস্য উমর আব্দুল্লাহ শাহিন।

উল্লেখ্য, বরগুনা-১ আসনে আ.লীগ দলীয় বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আ’লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর, বিরুদ্ধে স্থানীয় শীর্ষ নেতাদের বড় একটা অংশ অনিয়োম, দুর্নীতি আর ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ এনে বিরোধীতা করে তাকে এলাকায় অবাঞ্চিত ঘোষনা করেছেন। বিরুদ্ধেও তিনটি উপজেলার সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক কেন্দ্রে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ফলে একাধিক গ্রæপে বিভক্ত হয়ে বরগুনা-১ থেকেই মনোনয়ন পত্র কিনেছেন উভয় পক্ষের নেতারা।

বাংলাটিভি

সংশ্লিষ্ট খবর

Back to top button
Close